ব্যবসায়ীর উপর হামলা গ্রেফতার ১, প্রতিবাদে বিক্ষোভ

news news

news

প্রকাশিত: ১০:৪৫ পূর্বাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৯, ২০১৯ | আপডেট: ১০:৪৫:পূর্বাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৯, ২০১৯
হামলার প্রতিবাদে বিক্ষোভ

এইচ. এম. মিলন ॥
কালকিনি উপজেলার কালিগঞ্জ বাজারের ওয়ার্কশপ ব্যবসায়ী মোঃ মাহাবুব সরদার(৩০) এর উপর সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা ঘটেছে। পরে স্থানীয় লোকজন তাকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। এ ঘটনায় থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন ভূক্তভোগী পরিবার। তবে চাঁদা দিতে রাজি না হওয়ায় ব্যবসায়ীর উপর এ হামলা চালিয়েছেন বলে ভূক্তভোগী পরিবারের দাবী। আজ বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১’টার দিকে মাহাবুবের উপর সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে এবং বিচারের দাবীতে এক বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে বাজারের শতাধীক ব্যবসায়ীরা। এদিকে থানা পুলিশ সকালে অভিযান চালিয়ে মোঃ শানাউল নামের একজন আসামীকে গ্রেফতার করেন।
ভূক্তভোগী ও মামলা সুত্রে জানা গেছে, উপজেলার আলীনগর এলাকার টুমচড় গ্রামের রশিদ সরদার ছেলে মাহাবুব সরদার দীর্ঘদিন যাবত কালিগঞ্জ বাজারে একটি ওয়ার্কশপের দোকান দিয়ে ব্যবসা পরিচালনা করে আসছেন। এর সুবাদে তার কাছে একই এলাকার ফাসিয়াতলা গ্রামের সেলিমের ছেলে হাসানসহ বেশ কয়েকজন মিলে চাঁদা দাবী করে আসছেন। পরে গত ১৫ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় ব্যবসায়ী মাহাবুব তার দোকানের মালামাল ক্রয় করার জন্য ফাসিয়াতলা বাজারে যায়। এসময় মাহাবুবের কাছে টাকা দাবী করেন কয়েকজন যুবক। এ দাবীকৃত চাঁদার টাকা দিতে রাজি না হওয়ায় মোঃ হাসান, সোহাগ, তুষার, সানাউল, সলেমান, রেজাউল ও হাকিমসহ ৮/১০জন মিলে তাকে হাতুড়ী দিয়ে পিটিয়ে ও দেশী অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে ফেলে রাখে। পরে স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেন। এ হামলার ঘটনায় আহত ওই ব্যবসায়ী মাহাবুবের পিতা রশিদ সরদার বাদী হয়ে মোঃ হাসান, সোহাগ, তুষার, সানাউল, সলেমান, রেজাউল ও হাকিমসহ ১১জনকে আসামী করে কালকিনি থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। ব্যবসায়ী মাহাবুবের উপর সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে এবং বিচারের দাবীতে এক বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছেন বাজারের শতাধীক ব্যবসায়ীরা। এসময় বক্তব্য রাখেন ব্যবসায়ী ফেরদাউস মোল্লা, ইউপি সদস্য দেলোয়ার হোসেন, যুবলীগের সভাপতি মোঃ ইলিয়াস হোসেন, বাজার কমিটির সভাপতি তালেব হাওলাদার ও সাধারন সম্পাদক মোঃ রেজাউল চৌকিদার প্রমুখ। এদিকে কালকিনি থানার এসআই আল ইমরান অভিযান চালিয়ে মোঃ শানাউল নামের একজন আসামীকে গ্রেফতার করেন।
মামলার বাদী মোঃ রশিদ সরদার বলেন, আসামীরা আমার ব্যবসায়ী ছেলে মাহাবুবের কাছে দীর্ঘদিন ধরে চাঁদা দাবী করে আসছে। তাদের এ দাবীকৃত চাঁদার টাকা না পেয়ে তার উপর সন্ত্রাসী হামলা চালিয়েছে। এসময় তার কাছে থাকা নগদ ১লক্ষ টাকা ও মোবাইল ছিনিয়ে নিয়ে যায় হামলাকারীরা।
অভিযুক্ত আসামী হাসানের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তাকে এলাকায় পাওয়া যায়নি।
এ ব্যাপারে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা মোঃ আল ইমরান বলেন, আসামী শানাউলকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এবং বাকী আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।