বাহরাইনে বাংলাদেশ দূতাবাসের উদ্যোগে বঙ্গবন্ধুর ৪৬ তম শাহাদাত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উদযাপন

প্রকাশিত: ৯:৪৮ অপরাহ্ণ, আগস্ট ১৫, ২০২১ | আপডেট: ৯:৫০:অপরাহ্ণ, আগস্ট ১৫, ২০২১

নিজস্ব প্রতিবেদক :

বাহরাইনে যথাযোগ্য মর্যাদায় বাংলাদেশ দূতাবাসের উদ্যোগে পালিত হল বাঙ্গালী জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৬ তম শাহাদাত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস।

১৫ আগষ্ট দেশটির রাজধানী মানামায় দূতাবাস প্রাঙ্গণে স্থানীয় সময় সকাল ৯টায় জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত করার মধ্য দিয়ে দিবসটির আনুষ্ঠানিক কার্মসূচী শুরু করেন বাহরাইনে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত রাষ্ট্রদূত ড. মো. নজরুল ইসলাম।

এরপর জাতির জনকের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ শেষে কোরআন তিলাওয়াত করে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ পরিবারের নিহত সকলের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করে এক মিনিট দাঁড়িয়ে নিরবতা পালন করা হয়।

এ সময় দূতাবাস অডিটোরিয়ামে এক আলোচনা সভায় রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী,পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বাণীসমূহ পৃথক করে পড়ে শোনান দূতাবাসের কাউন্সিলর ও দূতালয় প্রধান মোঃ রবিউল ইসলাম ও লেবার কাউন্সিলর( শ্রম সচিব) শেখ মোহাম্মদ তৌহিদুল ইসলাম।

এসময় বঙ্গবন্ধুর জীবন ও কর্মের উপর প্রামাণ্য চিত্র প্রদর্শন করা হয়

রাষ্ট্রদূত তার বক্তব্যে বঙ্গবন্ধুর বর্ণাঢ্য জীবন ও বলিষ্ঠ নেতৃত্বের বিভিন্ন উল্লেখযোগ্য দিক তুলে ধরেন এবং স্বাধীন বাংলাদেশ বিনির্মাণে তার আত্মত্যাগের কথা গভীর শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করেন তিনি।

বঙ্গবন্ধুর নৃশংস হত্যায় জাতির অপূরণীয় ক্ষতির কথা উল্লেখ করে রাষ্ট্রদূত জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ গড়তে সকলকে নিজ নিজ অবস্থান থেকে আরও সচেতন, নিষ্ঠাবান ও নিবেদিত হতে এবং বঙ্গবন্ধু হত্যার শোককে শক্তিতে রূপান্তরিত করতে আহ্বান জানান।

আলোচনায় উপস্থিত ছিলেন দূতাবাসের সকল কর্মকর্তা কর্মচারী এবং বাংলাদেশ কমিউনিটি ও সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ।

অনুষ্ঠান শেষে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তার পরিবারের সকল শহীদ সদস্যবৃন্দ ও মুক্তিযুদ্ধের শহীদদের আত্মার মাগফেরাত এবং দেশ ও জাতির অব্যাহত সমৃদ্ধি কামনা করে বিশেষ মােনাজাত করা হয়।